1. admin@netroalapon.com : admin :
  2. raihafntinv@gmail.com : Editor :
ঘুরে আসুন নেত্রকোনার সাজেক (ভিডিওসহ) - নেত্র-আলাপন
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৫১ অপরাহ্ন

ঘুরে আসুন নেত্রকোনার সাজেক (ভিডিওসহ)

অতিথি লেখক
  • Update Time : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১১১৫ Time View

কলমাকান্দা উপজেলার রংছাতি ইউনিয়নের পাহাড়ঘেষা গ্রামটিই পাতলাবন। নামেই বৈচিত্র্য নামেই ভিন্নতা। ভারতের মেঘালয় পাহাড়ের কোলঘেষে প্রাকৃতিক নিসর্গে গড়ে উঠা পাতলাবন নামের এই গ্রামটি।

পাহাড়, নদী, বালুচর মিলে এক প্রকৃতির নৈসর্গিক রূপের মিশ্রন পাতলাবন। যাতায়াত দূরাবস্থা আর সম্প্রচার মাধ্যমে দৃষ্টিগোচর হয়নি বলে এখনো অনাবিস্কৃত এ পাতলাবনে এই জায়গাটি।

প্রতিটি বিকেল এখানে সবুজ মাঠ অার বালুচরে ভ্রমন পিপাসীরা ভিড় করে।
বিছানাকান্দির নাম শুনেছি, তার সৌন্দর্যে পাগল হয়ে ছুটে গিয়েছি কিন্তু জন্মভূমি কলমাকান্দার পাতলাবনের অাবেদন এখনো সকল জায়গার চেয়ে বেশি।

পাতলাবনের ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

মেঘালয় পাহাড় থেকে বয়ে অাসা নদী মহাদেও এর কূলবর্তী যে অবারিত সবুজ মাঠ, বালুচর, সবুজ ধানক্ষেত মিলে পাতলাবন এই গ্রামটি। সীমান্তে বাংলাদেশ অংশের কিছু কিছু টিলা এতে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে।
পাশেই আদিবাসী গারোদের বাস। সন্ধ্যা হলেই অাদিবাসীদের সংস্কৃতি, রীতি নীতি, ডোলের মাদল অাপনাকে ভিন্ন একটি জাতিসত্তার সাথে পরিচয় ঘটাবে। টিলার উপরে বিলুপ্ত প্রায় মাচাঙ ঘরে তাদের বাস। পাহাড় থেকে নদীতে বয়ে অাসা বড় বড় পাথর অার মাচাঙ ঘর এই তাদের ঐতিহ্য।
গারোদের অকৃত্রিম সরলতা, পাহাড়ের নিরবতা, নদীর বহতা, বালুচরের জোছনা আর দুই পাশের গ্রামীণ জনপদ অাপনাকে নিটোল চিত্রের সাথে আলাপ করিয়ে দিবে।

সময় অার ঋতুর সাথে পাতলাবনের রুপ বদলায়। বর্ষায় পাহাড়ি ঢল মহাদেও দুকূল ছাপিয়ে দেয় জলে। অার বৈশাখ মাসে সেখানে হাটু জলে নদী ছড়ায় পরিণত হয়। পাহাড়ি ঝর্নাধারা থেকে বয়ে অাসা সেই স্বচ্ছ জলে অবগাহনে অানন্দ মিলে। যেখানের স্বচ্ছ জলে ছোট ছোট মাছেরা খেলা করে। ছুটে চলা সে মাছ ধরার মজাই আলাদা। পড়ন্ত বিকেলে ছোট ডিঙায় করে ঘুরে বেড়ানোর সুযোগও রয়েছে।

নেত্রকোনার সকল সংবাদ সবার আগে পেতে এখানে ক্লিক করুন

আধুনিক নাগরিক সুবিধা তথা বিজলির আলো পর্যন্ত পৌঁছায়নি এলাকাটিতে। অজপাড়া গাঁ বলতে যা বুঝায়। কিন্তু অভাব নেই প্রাকৃতিক মুক্ত আলো বাতাস আর নৈসর্গিকতর। তবে আধুনিক শিক্ষার আলোয় আলোকিত পাতলাবন।

প্রায় ২০-৫০ জন মেধাবী সন্তান পাতলাবনের কোল থেকে উঠে এসে ঢাকা ইউনিভার্সিটি সহ বিভিন্ন ইউনিভার্সিটিতে পড়ালেখা করে দেশের উচ্চ পদে থেকে দেশের সেবায় নিয়োজিত।
এছাড়াও প্রতি বছর এখান থেকে ২-৫ জন শিক্ষার্থী বিভিন্ন ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হয়। বলা হয়ে থাকে প্রাকৃতিক অপার এ সৌন্দর্যই এখানকার সবচেয়ে বড় বিদ্যাপীঠ আলোর আধার।

আশেপাশে আরো কিছু দেখার মত জায়গা রয়েছে। যেগুলোর মধ্যে ভুবনের টিলা, জাইগিরপাড়া, সাত সওদাগরের চান্দ্রডিঙা, পাহাড়ের পাশদিয়ে সীমান্ত সড়কে মোটর বাইক রাইড সব মিলিয়ে ভালো লাগার মন মাতানো পাতলাবন আপনার ভালো না লেগে পারেই না। তাই পাতলাবনের সৌন্দর্য উপভোগ করতে আর দেরী কেন, চলে আসুন যেকোন সময়।

যেভাবে যাবেনঃ
নেত্রকোনা জেলা শহর থেকে ৪০ কিমি উত্তরে ভারত সীমান্তবর্তী কলমাকান্দা উপজেলার রংছাতি ইউনিয়নের পাহাড়ঘেষা এই গ্রামটিই পাতলাবন।
ঢাকা থেকে বাসে বা ট্রেনে করে নেত্রকোনা এরপর সিএনজি বা বাসে করে কলমাকান্দা। এমনকি সরাসরি বরুয়াকোনা বাজার কিংবা সরাসরি পাতলাবন যাওয়া যায়।
যদিও স্থানীয়ভাবে পর্যটন ব্যবস্থা গড়ে উঠেনি বলে থাকতে হবে উপজেলা শহর কলমাকান্দায়। গড়ে উঠলে হয়ত মহাদেও নদীর চরে তাবু টানিয়ে জোছনা রাতে জোছনাবিলাস আর বার-বি-কিউ এর সাথে আদিবাসী নৃত্য ভিন্ন মাত্রা যোগ করবে নিঃসন্দেহে। তবে আমার গৃহে সবসময় আপনাকে সাদর নিমন্ত্রণ।

সতর্কতাঃ
সীমান্তবর্তী হওয়ায় বিজিবি এবং বিএসএফ এর কড়া পাহাড়া চলে সার্বক্ষণিক। তাই ভুলেও সীমানা অতিক্রম করবেন না। প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করুন আইন মেনে। আদিবাসী ছেলেমেয়েরা সাধারণত অপরিচিতদের প্রথমে সহজে আপন ভাবেনা তবে দূরের পর্যটক শুনলে আতিথেয়তায় মুগ্ধ হবেন। তাই একটু সামলে চলুন। আনন্দভ্রমণ আনন্দময় হোক।

লিখেছেন-
মনজুরুল আমিন
উপপরিচালক,
বাংলাদেশ ব্যাংক।
গ্রাম: বরুয়াকোনা, পাতলাবন।
কলমাকান্দা, নেত্রকোনা

নেত্রকোনা নেত্রকোণা কলমাকান্দা পাতলাবন পাহাড় আদিবাসী সৌন্দর্য গারো ট্যুর ঘুরে আসুন যেভাবে যাবেন সতর্কতা নেত্রকোনা নেত্রকোণা কলমাকান্দা পাতলাবন

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 netroalapon.com
About Us |Privacy Policy | Sitemap  |Terms & Conditions
Theme Customized BY LatestNews